ব্রাহ্মণবাড়িয়া.প্রেসঃ এসপি ব্রাহ্মণবাড়িয়া ডেস্কঃ- “ বাবা,মা হারানো মেয়ে দুলেনা আক্তারের পড়ালেখার দায়িত্ব নিলেন পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া”
শত বাধা অতিক্রম করে ৩য় থেকে ৪র্থ শ্রেনীতে উত্তীর্ণ হওয়া ছাত্রী দুলেনা আক্তারের পাশে দাঁড়িয়েছেন (অতিরিক্ত ডিআইজি) পুলিশ সুপার, জনাব মো: মিজানুর রহমান পিপিএম (বার), ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহোদয় । দুলেনা আক্তার এ বছর ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর আর্দশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪র্থ শ্রেনীতে ভর্তি হয়েছে । আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে বাবা ,মা হারানো মেয়েটির পড়ালেখা নিয়ে প্রতিনিয়ত দুশ্চিন্তায় কেটেছে ।
মেধাবী দুলেনা আক্তারের পড়ালেখা নিয়ে দুশ্চিন্তার খবর জানতে পেরে পড়ালেখার খরচ চালিয়ে নেয়ার দায়িত্ব নিয়েছেন পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া । অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন দুলেনা আক্তারের পরিবারের খোঁজখবর নেন। ৪র্থ শ্রেনীতে ভর্তির জন্য দুলেনা আক্তারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া । এ সময় উপস্থিত ছিলেন দুলেনা আক্তারের নানা মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম, পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শিশুকাল থেকেই বাবা,মা আদর-স্নেহ থেকে বঞ্চিত দোলেনা । তাই ঠাঁই হয়েছে নানার ভাড়া বাড়ি ষ্টেশন রোড়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় । তবুও জীবনযুদ্ধে হেরে যায়নি দোলেনা। বাবা দুলেনাকে ছোট রেখে মারা যায় তারপর মা হেলেনা বেগম দুলেনার বয়স যখন তিন বছর, তখন সে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দোলেনার নানা নরুল ইসলাম কঠোর পরিশ্রম করেও মুখে দুবেলা খাবার জোটাতে অনেক বেগ পেতে হয় তবুও পড়ালেখা শিখিয়ে মানুষের মতো মানুষ করার নিরন্তর চেষ্টা তার । দেশের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে টাকার অভাবে কোনো মেধাবীর পড়ালেখা বন্ধ হবে না বলে মনে করেন পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *