আল্লামা জুবায়ের আহমদ আনছারী (রহঃ) ছিলেন এক চতুর্মুখী আলেমেদ্বীন। আল্লামা আনছারী একজন যোগ্য আলেম, শায়খুল হাদীস, নিঃসার্থহীন এক ওয়ায়েজ এর নাম। দেশ-বিদেশ তিনি সফর করেছেন কোরআনের জন্য। তেলাওয়াত এর মাধুর্যতা আর তাফসীরের সাবলিলতা আর অমায়ক কন্ঠ দিয়ে মানুষের অন্তরকে কেড়ে নিয়েছিলেন। কোরআন-হাদীসের আলো পৌঁছাতে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে বেরিয়েছেন আর মানুষের মাঝে দীনকে পৌঁছিয়ে দিয়েছেন। বাংলার এক প্রবীণ ওয়ায়েজ ছিলেন তিনি, জীবনের দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন কোরআনের খেদমতে, প্রতিষ্ঠা করেছেন জামিয়া রহমানিয়া বেরতলা মাদরাসা। যেখানে তিনি বুখারীর দরস দিতেন আর ভাবতেন সবসময় স্বপ্নের প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যায়। তিনি নিজের স্বপ্নকে বাস্তবায়নও করেছিলেন, দেখে যেতে পেরেছেন নিজের প্রতিষ্ঠানে দারুল হাদীসের দরসগাহ।

নিজের জীবনের শেষ ইচ্ছে মাদ্রাসা মসজিদের কাজও শেষ এর পথে ছিল। রাজনীতির ময়দানেও আল্লামা আনছারীর পদাচরণ ছিলেন! শায়খুল হাদীস (রহঃ) খেলাফত মজলিসের নায়েবে আমীর ছিলেন। আল্লামা আনছারী (রহঃ) ছিলেন এক চতুর্মুখী আলেম। আর কোনদিন আল্লামা আনছারীর মধুর তেলাওয়াত শুনা যাবেনা, দেখা যাবেনা আর কোন বয়ানের স্টেজে। আল্লামা আনছারীর ইন্তেকালে হারিয়েছি আমরা কওমি ঘরনার এক উজ্জ্বল নক্ষত্রকে। আল্লাহ তায়ালা উনার কবরকে জান্নাতুল ফেরদৌসের উচু মাকাম দান করুক, আমিন।

লেখক, হাফেজ তারেক জামীল।

By khobor

One thought on “আল্লামা জুবায়ের আহমদ আনছারী (রহঃ) ছিলেন এক চতুর্মুখী আলেমেদ্বীন। হাফেজ তারেক জামীল “”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *