আনছারুল হক ইমরান;’ খেলাফতে ইসলামী বাংলাদেশের আমীর ও ইসলামী ঐক্যজোটের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী এক বিবৃতিতে বলেছেন,সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানের দেশে ইসলামপন্থীদের বাদ দিয়ে জাতীয় ঐক্যের ঘোষণা গভীর ষড়যন্ত্রের ইঙ্গিত বহন করছে। ইসলামীপন্থীদের অবহলো করে জাতীয় ঐক্য জাতীর সাথে তামাশা ছাড়া আর কিছু নয়। তিনি বলেন, যিনি জীবনভর প্রাণপ্রিয় শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (স.)-এর নবুয়্যত অস্বীকারকারী কাদিয়ানীদের আইনী সহায়তা দিয়েছেন, ইসলামী মূল্যবোধের বিরুদ্ধে বক্তব্য-বিবৃতি দিয়ে সামাজ্যবাদের পুতুল হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছেন, একাধিক নির্বাচনে যার জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে তিনি যখন জাতীয় ঐক্যের চালকের আসনে বসেন, তখন জাতির শঙ্কা বেড়ে যায়, ঐক্যের গ্রহণযোগ্যতা হয় প্রশ্নবিদ্ধ!

 

 তিনি বলেন, ইসলামী শক্তিকে পাশ কাটানো কথিত ঐক্য জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য নয়, বরং এটা জনগণকে ধোঁকা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার নীল নকশার প্রাথমিক মহড়া। আমি মনে করি, প্রকৃত জাতীয় ঐক্য গড়তে হলে ইসলামী দলগুলোর সাথে আলোচনার টেবিলে বসতে হবে এবং জাতীয়তাবাদী ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ্বাসী গ্রহণযোগ্য কাউকে নেতা নির্বাচন করতে হবে। বিতর্কিত, জনবিচ্ছিন্ন কিংবা কাদিয়ানীদের দোসর এমন কাউকে নেতা নির্বাচন করলে সেই ঐক্য জনগণ মেনে নেবে না।

তিনি বলেন, বিএনপির মত একটি অভিজ্ঞ দল কথিত জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট গঠনের মাধ্যমে নিজেদের দেওলিয়াপনা জাহির করেছে। দেশবাসী তাদের কাছে এমনটা আশা করেনি। তারা দুই নৌকায় (২০ দল ও কথিত ঐক্য) পা দিয়ে নিজেদের পায়ে কুঠারাঘাত করেছে। এজন্য ভবিষ্যতে তাদের চরম মূল্য দিতে হতে পারে।

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *