ব্রাহ্মণবাড়িয়া.প্রেস রিপোর্ট।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার পত্তন ইউপি এলাকার মালয়েশিয়ায় কর্মরত অবস্থায় মৃত, আলামিন নামের বিবাহিত এক প্রবাসী যুবককে অবিবাহিত দেখিয়ে ওয়ারিশান সনদ জালিয়াতির অভিযোগের ঘটনার মামলার প্রধান আসামী  স্থানীয় পত্তন এলাকার মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে পত্তন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান রতন (৪৫) সহ ৪ আসামীর বিরুদ্ধে  গত ১২/০৩/২০১৮ইং তারিখে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমালী আদালত -০১ ব্রাহ্মণবাড়িয়া বরাবর মামলার চুরান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন বাংলাদেশ পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন  (পিবিআই) ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখা ।

মামলার অপর আসামীরা হলেন, একই এলাকার হাজী সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের স্বাস্থ্য সহকারী আতিকুল ইসলাম (৩৬), পত্তন এলাকার মাহতাব মিয়ার ছেলে হারুনুর রশিদ (৪০) ও  বাদীর শাশুড়ি আমেনা খাতুন(৫৫)।

বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমালী আদালত -০১ ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহন করে আগামী ২২/৪/২১৮ইং তারিখে মামলার পরবর্তী শুনানীর  দিন ধার্য করেন। মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী এ্যাডঃ সারোয়ার-ই আলম ও এ্যাডঃ জায়েদুল ইসলাম গোলাপ জানান, বিজ্ঞ আদালত মামলাটির শুনানী আগামী ২২তারিখে ধার্য করেছেন। শুনানীর তারিখে আসামীদের গ্রেফতারী পরোয়ানার জন্য আদালতের  কাছে আবেদন করা হবে।   

এর আগে গত ৫-ই ডিসেম্বর ২০১৭ইং তারিখে স্থানীয় পত্তন ইউপি এলাকার আতকা পাড়া গ্রামের মন মিয়ার কন্যা ও মালয়েশিয়া কর্মরত অস্থায় মুত্যুবরণকারী বাংলাদেশি প্রবাসী যুবক আলামিনের বিধবা স্ত্রী জুমাইয়া বেগম বাদী হয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মোকাম বিজ্ঞ সিনিয়র চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (বিজয়নগর) আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের (পিবিআই) শাখাকে (সি.আর-৪৮৩-২০১৭) মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে তদন্তের প্রতিবেদন আগামী ১৮ জানুয়ারী জমা দিতে বলা হলেও   (পিবিআই) ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখা দীর্ঘমেয়াদী এই মামলার তদন্ত কাজ শেষে গত ১২/০৩/২০১৮ইং তারিখে আদালতে তদন্তের চুরান্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

 

 

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *