ব্রাহ্মণবাড়িয়া.প্রেসঃ- বার্তা শাহরিয়ার সবুজ। 

থানা থেকে জব্দকৃত মোটরসাইকেল নিয়ে চম্পট দেওয়ায় ফেঁসে গেছেন পুলিশের এসআই জামিরুল।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা থেকে মোটর সাইকেল নিয়ে চম্পট দেওয়ার ঘটনায় এসআই জামিরুল ইসলামকে পুলিশি হেফাজতে নিয়েছে সদর থানা পুলিশ। রোবাবার রাত থেকে এসআই জামিরুল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন। রাতে তাঁকে থানার ডিউটি অফিসারের কক্ষে রাখা হয়েছিল।

এসআই জামিরুল ব্রাহ্মণবাড়িয়া মডেল থানায় কর্মরত ছিলেন বেশ কিছুদিন । দায়িত্ব্যরত অবস্হায় বেশকিছু ঘঠনার জন্ম দেন তিনি,, গত ৩ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়নের খাকচাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি মো. উবায়দুল্লাকে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করে তাকে মারধর করেন তিনি। পরে আড়াই হাজার টাকা দিয়ে জামিরুলের হাত থেকে ছাড়া পান ওই দফতরি। এ ঘটনায় ৫ আগস্ট জামিরুলকে প্রত্যাহার করা হয়।

পুলিশ জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা থেকে প্রত্যাহার হওয়ার পর রাঙামাটি জেলার বরকল থানায় যোগ দেন এসআই জামিরুল। পরে গত ১১ নভেম্বর তিনি হাইওয়ে পুলিশের সদর দফতরে যোগদান করেন। বিভাগীয় একটি মামলায় সাক্ষী দিতে রোববার তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন। সন্ধ্যায় তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা ভবন থেকে জব্দকৃত একটি মোটর সাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় কর্তব্যরত কনস্টেবল সালাউদ্দিন তাকে বাঁধা দেন। কিন্তু জামিরুল বাঁধা না মেনে মোটর সাইকেল নিয়ে চলে যান। পরে রাতে জামিরুলকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে আসেন সদর মডেল থানার পুলিশ।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউল কবির জানান, এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *