ব্রাহ্মণবাড়িয়া. প্রেস রিপোর্ট। আজ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর পূর্ব মেড্ডা পুরাতন পুলিশ পাড়ির সামনে সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শান্ত (২৬) কে,  পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লিমন আল স্বাধীন গুলিবিদ্ধ করে!

আজ শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এই ঘটনাটি ঘটে। গুরুতর অবস্ত্থায় আহত শান্তকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ফয়েজুর রহমান ফয়েজ জানান, শান্ত এর বুকে দুইটি গুলি লেগেছে। একটি গুলি অপসারণ করা হয়েছে। আরেকটি গুলি অপসারণ করা যায়নি। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা ঢামেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

সাইফুল ইসলাম শান্ত পূর্ব মেড্ডা এলাকার মো: অহিদ মিয়ার ছেলে। মো: অহিদ মিয়া ওনি বর্তমানে জেলা বাস মিনিবাস পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি। একই এলাকার বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ আবুল বাসার মিয়ার আপন ফুফাতো ভাই, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লিমন আল স্বাধীন। সে মো: আরব আলী মিয়ার ছেলে।

ঘটনাস্থল লোক মার মারফতে জানা যাই বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে লিমন আল স্বাধীন, কাউন্সিলর  মো: আবুল বাসার মিয়ার আরেক ফুফাতো ভাই, জাহাঞ্জীর মিয়ার ছেলে মো: আলআমিনকে বলে দ্রুুতগতি বাসা হতে পিস্তলটা নিয়ে আয়। সবাইকে খবর দিবি আসার জন্য। ঘটনাস্ত্থল হতে তাৎক্ষনিক সকলে সরিয়ে পরেন।এমতাবস্থায় শান্ত একাকী বাড়ীর উদ্দেশ্য রউয়ানা দিলে তার পথগামী রুুুদ্ধ করেন-  মাহাবুব, আক্তার, আলামিন সহ আরো দলবল। এমতাবস্থায় লিমন আল স্বাধীন, তাহার পায়ের  নিচ হতে পিস্তল বাহির করে শান্ত এর বুুকের মাঝে গুলি করে।

আজ পূর্ব মেড্ডায় জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপ ও বাস পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন যৌথভাবে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে। এতে স্থানীয় সংসদ সদস্য র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী প্রধান অতিথি ছিলেন।অনুষ্ঠানে সাইফুল ইসলাম শান্তর সাথে পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক স্বাধীন আল লিমনের বাকবিতণ্ডা হয়। এর কিছুক্ষণ পর শান্ত বাড়ি যাওয়ার পথে পুরাতন পাড়ির সামনে, স্বাধীন আল লিমন তাকে একা পেয়ে গুুুলিবিদ্ধ করে।

এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লিমন আল স্বাধীনকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করেন। একই সাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর ছাত্রলীগের সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম, প্রেস বিজ্ঞপ্তি করে  সাময়িকভাবে স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ মাসুম বিল্লাহ সেখানে গিয়ে, দলে অনেক বেয়াদব ছাত্রলীগ দলে প্রেরন করেছে বলে অভিযোগ তুলেন। এ নিয়ে উপস্থিত কয়েকজনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়।

মাসুম বিল্লাহ অভিযোগ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া. প্রেস  কে জানান, একেবারে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লিমন আল স্বাধীন উত্তেজিত হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ইফতারের কয়েক মিনিট আগে সাইদুল ইসলাম শান্ত গুলিবিদ্ধ হয়েছে। এব্যাপারে লিমন আল স্বাধীন এর সাথে মোবাইল ফোনে একাদিক্রমে চেষ্ঠা করেও পাওয়া যায়নি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ জিয়াউল হক জানান, কিছুটা উত্তেজনা থাকায় শহরের গুরুত্বপূর্ণস্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

By khobor

144 thoughts on “ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা আহত ও শহর ছাত্রলীগ নেতা লিমন আল স্বাধীন বহিষ্কার”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *