নাসির উদ্দিন ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে প্রেমিককে বিয়ে করতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রেমিকার আত্মহত্যা!!

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে আজ রবিবার বিকেলে নিহতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। জানা যায়, উপজেলা অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউড়া পূর্বপাড়ার ভ্যান চালক মস্তু মিয়ার মেয়ে গার্মেন্টস কর্মী উজ্জলা বেগম (২৬) প্রায় ১ বছর ধরে প্রেম করে আসছিল একই এলাকার কাঁচামাল ব্যবসায়ী আঞ্জু মিয়ার ছেলে সিএনজি চালক কদর মিয়া (২৫) এ-র সাথে। এই সুবাধে গার্মেন্টস কর্মী উজ্জলা বেগম বিভিন্ন সময় তার প্রেমিককে টাকা কর্জ দেয়। গত বৃহষ্পতিবার তাকে বিয়ে করবে বলে খবর দিয়ে ঢাকায় থেকে আনে প্রেমিক কদর মিয়া। শুক্রবার জুম্মা নামাজের পর উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে বিয়ে করতে অস্বীকার করে প্রেমিক কদর আলী এবং কর্জ নেওয়া- ২০ হাজার টাকার কথা অস্বীকার করে। ভারাক্রান্ত হয়ে বাড়িতে ফিরে আসে প্রেমিকা উজ্জলা বেগম।

শনিবার বিকেলে উজ্জলা বেগম, বাবার বসত ঘরের তীরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে সরাইল থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে রাতেই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করে। মেয়ের বাবা মস্তু মিয়া জানান, আমার মেয়েকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বিভিন্ন সময়ে টাকা নিয়েছে। বিয়ে করার জন্য খবর দিয়ে বাড়িতে আনে কদর মিয়া। কিন্তু পরিবারের লোকজনের বাধার কারনে বিয়ে করতে অসম্মতি জানায় কদর মিয়া। এ ঘটনায় মস্তু মিয়া বাদী হয়ে সরাইল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানান।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদত হোসেন টিটু জানান, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *