ব্রাহ্মণবাড়িয়া.প্রেসঃ- ডেস্ক বিশেষ বার্তা ।ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিশু হালিমা হত্যাকান্ডে  চাঞ্চল্যকর রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ।

          নিহত শিশুটির চাচা হেলাল মিয়া ও তার সহযোগি রুবেলকে গ্রেফতার করেন। সোমবার সকালে জেলা পুলিশের কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলণের পর, পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।সংবাদ সম্মেলণে জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, গত ২ ফেব্রুয়ারি ভাদুঘর এলাকা থেকে তিন বছরের (শিশু হালিমার) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার পর পুলিশের একাধিক টিম ঘটনার তদন্ত চালান। তদন্তের এক পর্যায়ে একই বাড়ির হালিমার চাচা হেলাল মিয়াকে আটক করা হয়েছে।

গত ২ ফ্রেব্রুয়ারি শহরের ভাদুঘরে নিখোঁজের পর খুন হয় শিশু হালিমা। সে ভাদুঘর এলাকার রাজমিস্ত্রি আমির হোসেন এর মেয়ে।পরে জিজ্ঞাসাবাদে এ হত্যার দায় স্বীকার করে। সে জানায়, দীর্ঘদিন পূর্বে তার ভাবি খাদিজা বেগমকে কুপ্রস্তাব দিয়েছিল। সেই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে, খাদিজা বেগমের উপর প্রতিশোধ নিতে ১ মাস পূর্বে হেলাল তার ভাতিজি হালিমাকে হত্যার পরিকল্পনা করে।

ঘটনার দিন সে কৌশলে হালিমাকে সকালে বাড়ি থেকে চিপ্স দেয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। পরে সে তার সহযোগি রুবেলের সহায়তায় শিশুটিকে হত্যা করে ২ টি বহুতল ভবনের মাঝ খানে রেখে গেছে ।

By khobor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *